Select Page

Sniffer 1.0 G

Gas Leakage Alarm

এখনই সংগ্রহ করুন

গ্যাস দুর্ঘটনার ঝুঁকি এড়াতে
আপনার পরিবারের অতন্দ্র প্রহরী

ঢাকার ভিতর সম্পূর্ন ফ্রি শিপমেন্ট এবং ক্যাশ অন ডেলিভারি! 

অর্ডার করুন

Sniffer 1.0 G

Gas Leakage Alarm

 


আর নয় রান্নাঘরের 
গ্যাস দুর্ঘটনার আতঙ্ক

 

ঢাকার ভিতর সম্পূর্ন ফ্রি সেটআপ
এবং ক্যাশ অন ডেলিভারি! (স্টক সীমিত) 

স্টক ফুরানোর আগেই অর্ডার করুন

একের ভিতর সব!

সিলিন্ডার সহ রান্নার কাজে ব্যবহৃত (মিথেন, বিউটেন, প্রোপেন সহ) অন্যান্য গ্যাস সনাক্ত করে।

z

হাই-পিচ এ্যালার্ম

হাই-পিচ সাউন্ড এ্যালার্ম আপনাকে সতর্ক করতে পারে যথেষ্ঠ দূর থেকেই, এমনকি কোলাহলের শব্দের মধ্যেও।

পাওয়ার ব্যাকআপ

লোডশেডিংয়েও থাকুন নিশ্চিন্ত! রিচার্জেবল Li-ion ব্যাটারি ব্যাকআপ Sniffer কে বিদ্যুৎবিহীন সক্রিয় রাখবে।

চিন্তামুক্ত সেবা

সহজ ইন্স্টলেশন, সাথে ১ বছরের সার্ভিস ওয়ারেন্টি ও রেগুলার টেলিফোনে হেলথ চেক। নিরাপত্তার প্রশ্নে আমরা সর্বোচ্চ সতর্ক!

ডিলার নিয়োগ চলছে

যোগাযোগ করুন

01778-000033
01778-000044

 

আমাদের পণ্য/সেবা সকলের কাছে পৌঁছে দিয়ে আপনিও হতে পারেন ‘জলপাই’ এর ‘ব্র্যান্ড আইকন’।

What is sniffer 1.0 G

Sniffer 1.0 G

রান্নাঘরের গ্যাস লিকেজ এ্যালার্ম

এই ছোট্ট, শৈল্পিক বক্সটি একটি ইলেক্ট্রনিক ডিভাইস যা গ্যাস নিঃসরন জনিত দুর্ঘটনায় আপনার ও আপনার পরিবারের নিরাপত্তায় অতন্ত্র প্রহরী।

Sniffer এর উদ্ভাবনের পরিকল্পনা, গবেষনা থেকে শুরু করে সবকিছুই হয়েছে বাংলাদেশে। ছোট্ট এই বক্সটির পেছনে রয়েছে একদল মেধাবী, স্বাপ্নীক বাংলাদেশী প্রকৌশলীদের অক্লান্ত পরিশ্রম ও গভীর মমতা!

 নিরাপদে থাকুক প্রতিটি পরিবার
 proudly #MadeInDhaka

“গত এক বছরেই রান্নাঘরের গ্যাস-লিকেজ জনিত দুর্ঘটনার সংখ্যা ৫,১২৩ টি”

সুত্র : তিতাস

অর্থাৎ প্রতিদিন ১৪ টিরও বেশী দুর্ঘটনা! 

আপনার রান্নাঘর নিরাপদ তো? 

Sniffer 1.0 G

একটি উদ্যোগ, একটি স্বপ্ন…

 

 নিরাপদে থাকুক প্রতিটি পরিবার
 proudly #MadeInDhaka

“ফায়ার সার্ভিসের পরিসংখ্যানে দেশের অগ্নি দুর্ঘটনার ২০ শতাংশই গ্যাস-লিকেজ এর সাথে সম্পর্কিত!”

সুত্র : প্রথমআলো

আপনি সতর্ক আছেন তো?

কাছের মানুষের কথা

বাংলাদেশের মতো উন্নয়নশীল দেশে R&D ভিত্তিক ইলেক্ট্রনিক্স কোম্পানী প্রতিষ্ঠার ঊদ্যোগ প্রসংশার দাবীদার। ‘JolPi’ ইলেক্ট্রনিক্স এর প্রতিষ্ঠাতা রেজা উল কবীর এইক্ষেত্রে নিঃসন্দেহে একজন অগ্রদূত।

বিগত প্রায় ২৫ বছর যাবৎ বন্ধু হিসেবে, সহকর্মী হিসেবে এবং সহ-ঊদ্যোক্তা হিসেবে পরিচয়ে আমার উপলব্ধি হলো যে আপাত-অসম্ভব কোন স্বপ্ন দেখে তাকে বাস্তবায়ন করে দেখানোর মতো খুব অল্পসংখ্যক বাংলাদেশীর মধ্যে রেজা অন্যতম। ‘JolPi’ ইলেক্ট্রনিক্স এর প্রতিষ্ঠা, আমার মতে, রেজা এর প্রথাগত ধারণার বাইরে গিয়ে চিন্তা করতে পারার ফসল। আমার বিশ্বাস, ‘JolPi’ ইলেক্ট্রনিক্স বাংলাদেশের ইলেক্ট্রনিক্স শিল্পের বিকাশের পথিকৃত হয়ে থাকবে। সময়োপযোগী, অভিনব এই ঊদ্যোগ সফল হোক!

Dr. Enayetur Rahman (EEE BUET, PhD in EEE. UK)

Postdoctoral Research Associate, Dept of EEE, City, University of London

অর্ডার করুন

Order For Sniffer 1.0 G

প্রতিটি Sniffer মাত্র ২,৩০০ টাকা! 

 * কুপন কোড ব্যবহার করে ডিসকাউন্ট বুঝে নিন। 


ডিলারশিপের জন্য যোগাযোগ করুন

    +880 1778-000033

    +880 1778-000044

*স্টক এবং অফারের সময় দুটোই সীমিত।  

অর্ডার করুন

Order For Sniffer 1.0 G

প্রতিটি Sniffer মাত্র ২,৩০০ টাকা! 

 * কুপন কোড ব্যবহার করে ডিসকাউন্ট বুঝে নিন। 

ঢাকার ভিতর সম্পূর্ন ফ্রি শিপমেন্ট এবং ক্যাশ অন ডেলিভারি! 

ডিলারশিপের জন্য যোগাযোগ করুন,

   +880 1778-000033

   +880 1778-000044

ভিডিও

রেজাউল কবির। সিইও, জলপাই ইলেকট্রনিক্স – Channel 24 | আশার মশাল

JolPi in Bangladesh National Demo Day 2017 

Sniffer presentation in DemoDhaka 2017 at NewsCred’s Office 

Sniffer – User Story

Sniffer – Live demo video at kitchen (Uncut)

Sniffer – Promo

আপনাদের জিজ্ঞাসা

Sniffer আসলে কি?

এটি এমন একটি যন্ত্র যা খুব সহজেই আপনার ঘরের সিলিন্ডার সহ রান্নার কাজে ব্যবহৃত হয় এমন যেকোন প্রকার গ্যাস লিকেজ জনিত দুর্ঘটনার ঝুঁকি এড়াতে আপনাকে সতর্ক করতে পারে।

আমার রান্নাঘর তো আধুনিক, তাহলে কেন Sniffer ব্যবহার করবো?

আধুনিক বলেই আপনার এবং আপনার পরিবারের জীবনের নিরাপত্তার জন্য এটি আপনার ব্যাবহার করা উচিৎ। বিশেষজ্ঞদের মতে শহরের ২০% অগ্নি দুর্ঘটনাই রান্না ঘরের গ্যাস লিকেজ জনিত কারণে। এবং আধুনিক রান্নাঘর হওয়া সত্ত্বেও এসব দুর্ঘটনা খুব সাধারণ কারণেই ঘটে থাকে। কয়েকটি উদাহরণ দিচ্ছি,

১) পাতিলের ভাত-তরকারি উতরে চুলার আগুন নিভে যেতে পারে অথচ চুলার চাবি বন্ধ না হওয়ায় অতিরিক্ত গ্যাস নির্গত হয়ে ভয়াবহ দুর্ঘটনার সৃষ্টি হতে পারে।
২) কখনও কখনও গ্যাস লাইনে গ্যাসের প্রেশার কমে গিয়ে চুলার আগুন নিভে যেতে পারে কিন্তু চুলা চাবি বন্ধ না হওয়ায় পরবর্তিতে গ্যাসের প্রেশার ফিরে এলে গ্যাস নির্গত হয়ে দুর্গটনার ঘটতে পারে।
৩) বাচ্চারা খেলার ছলেই চুলার চাবি ঘুরিয়ে গ্যাস ছেড়ে দিতে পারে ফলে ঘটে যেতে পারে অনাকাঙ্ক্ষিত দুর্ঘটনা।
৪) আপনার রান্নাঘর নিরাপদ হলেও আপনার প্রতিবেশীর বা রাস্তার গ্যাস লাইনের লিকেজের কারণেও ঘটে যেতে পারে অপ্রিতিকর দুর্ঘটনা।

এটা ঠিক কিভাবে কাজ করে?

এর মধ্যে একটি শক্তিশালী সেন্সর রয়েছে যা সার্বক্ষনিক গ্যাসের গন্ধ শুঁকতে থাকে এবং প্রয়োজনের অতিরিক্ত গ্যাসের উপস্থিতি টের পেলেই এলার্ম দিয়ে অনাকাংক্ষিত দুর্ঘটনা থেকে সতর্ক করে দেয়।

এটা কোন কোন গ্যাস চিহ্নিত করতে পারে?

সিলিন্ডার সহ রান্নার কাজে ব্যবহৃত এরকম যেকোন প্রকার গ্যাস লিকেজ সনাক্ত করতে পারে, বিশেষ করে মিথেন গ্যাস। এছাড়াও রয়েছে বিউটেন, প্রপেইন ইত্যাদি। আবার অনেকেই চুলার উপর কাপড় শুকায়, বা কোন ভাবে চুলার উপর তেল অনেক গরম হয়ে আগুন ধরে যেতে পারে। সেক্ষেত্রে Sniffer স্মোক এলার্ম হিসেবেও কাজ করবে। 

এটা কোথায় লাগাতে হবে?

Sniffer 1.0 G মূলত রান্নাঘরে ব্যবহারের কথা বিবেচনা করেই বানানো হয়েছে। তাই এটিকে রান্নাঘরে ব্যবহার করলেই সবচেয়ে ভালো ফল পাওয়া যাবে।

১) রান্না ঘরের চুলার বিপরীত পাশের দেয়ালে অথবা পাশের দেয়ালে লাগান।
২) ফ্লোর থেকে কমপক্ষে ৬-৭ ফিট উপরে লাগাতে হবে।
৩) চুলা থেকে ১৫ ফিটের কম দূরত্বে লাগালে ভালো হবে।
৪) চুলার সরাসরি উপরে লাগানো উচিৎ হবে না।

লাগানো কতটা কষ্টকর?

মোটেই কষ্টকর না। বরং এটি একটি কলিংবেল লাগানোর চেয়েও সহজ। দেয়ালে একটি স্ক্রু লাগান এবং ডিভাইসটি মাউন্ট করুন। কাছাকাছি বিদ্যুৎ লাইন থেকে এডাপ্টারটি (Sniffer এর সাথে দেয়া ১২ ভোল্ট, ২ এম্পিয়ার) সংযোগ দিন। ব্যাস, আপনার কাজ শেষ।

কিভাবে নিশ্চিত হবো এটি ঠিকমত কাজ করছে কিনা?

স্বাভাবিক অবস্থায় Sniffer এর সেন্সরটি যতক্ষণ একটিভ থাকবে ততক্ষণ এর উপরের JolPi এর সাদা রঙের লোগোটি জ্বলজ্বল করে জ্বলে থেকে আপনাকে এটার কার্যকর অবস্থা জানান দিতে থাকবে। অতিরিক্ত গ্যাসের উপস্থিতি টের পেলেই এর লোগোটি হালকা লাল রঙের আভা ছড়িয়ে বিপ বিপ করে হাই-পিচ এলার্ম বাজিয়ে আপনাকে সতর্ক করবে যা আপনি কোলাহলেও স্পষ্ট শুনতে পাবেন।

আমাদের পরামর্শ হচ্ছে কমপক্ষে প্রতি মাসে একবার বা দুইবার একটি গ্যাস লাইটার দিয়ে Sniffer এর নিচের ছিদ্র দিয়ে গ্যাস চালিয়ে যাচাই করে নিন এটি ঠিক মত কাজ করছে কিনা। কোন রকম সমস্যা হলে আমরা তো আছিই আপনার পাশে।

এটা কি পরিমাণ বিদ্যুৎ খরচ করে?

এটা প্রতি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ২.৫ ওয়াট-আওয়ার অর্থাৎ প্রতি মাসে ২ ইউনিটেরও কম বিদ্যুৎ খরচ করে। প্রতি ইউনিট ৩.৩ টাকা ধরে প্রতিমাসে খরচ হচ্ছে মাত্র ৫.৯৪ টাকা।

* বিস্তারিত ট্যারিফ মূল্য জানতে ডেসকোর ওয়েবসাইট ভিজিট করতে পারেন।